এটিএম কার্ড সম্পর্কে যে বিষয় গুলো অজানা

অটোমেটেড টেলার মেশিন (Automated Teller Machine) কে সংক্ষেপে এটিএম (ATM) বলা হয়ে থাকে। আর এই ধরনের মেশিনে ব্যবহৃত কার্ড গুলোকে বলা হয় এটিএম কার্ড (ATM Card)।

টাকা উঠানো ছাড়াও অনলাইন পেমেন্ট, বিভিন্ন শপে পেমেন্ট এর জন্য এটিএম কার্ড এখন বহুল ব্যবহৃত। ডিজিটালাইজেশনের এই যুগে ক্যাশলেস (Cashless) হওয়ার জন্য এটিএম কার্ডের ভুমিকা সবচেয়ে বেশি।

সাধারনত এটিএম কার্ডগুলো প্লাস্টিক দিয়ে তৈরী হয়, এবং কার্ডে ম্যাগনেটিক স্ট্রাইপ(Stripe) বা চিপ বসানো থাকে। এই ম্যাগনেটিক স্টাইপেই একটি ইউনিক(Unique) কার্ড নাম্বার থাকে। এই কার্ড নাম্বারই ব্যবহারকারীর আইডেন্টিটি হিসেবে কাজ করে। মেশিন সাধারনত এই কার্ড নাম্বার ধরেই ইউজারের সাথে ট্রানজেকশন ঘটায়। আরেক ধরনের স্মার্ট এটিএম কার্ড এ এক্সটা কিছু তথ্য থাকে, যেমনঃ কার্ড এক্সপায়ারেশন(Expiration) তারিখ, সিভিসি নাম্বার।

এটিএম মেশিন

অটোমেটেড টেলার মেশিন কেই এটিএম মেশিন বলা হয়। এটিএম বুধে এই মেশিন ব্যবহার করা হয়।

এটিএম কার্ড ব্যবহারের নিয়ম

এটিএম কার্ড ব্যবহারের ক্ষেত্রে আপনার অবশ্যই একটি ব্যাংক একাউন্ট থাকতে হবে। যেটি আপনার একাউন্টের সাথে যুক্ত থাকবে, এবং সেই একাউন্টের ট্রাঞ্জেকশন আপনি আপনার এটিএম কার্ড ব্যবহার করে করতে পারবেন। এছাড়া এটিএম কার্ডে একটি গোপন পিন থাকে। যেই পিন নাম্বার ব্যবহার করে ট্রাঞ্জেকশন করা হয়। 

এটিএম কার্ড কিভাবে টাকা তুলব

এটিএম কার্ড দিয়ে কিভাবে টাকা তুলতে হয়

এটিএম বুথ থেকে টাকা তোলার নিয়ম

এটিএম কার্ড দিয়ে টাকা তোলা অনেকেই জটিল কিছু মনে করে। কিন্তু আপনি একবার 

এটিএম কার্ড ব্যবহার করলেই বুঝবেন এটা ব্যবহার করা অনেক সহজ। আপনি আপনার ব্যংকের নির্ধারিত এটিএম বুথে গিয়ে এটিএম কার্ডটি এটিএম মেশিন ঢূকালেই পরবর্তী স্টেপ মেশিনের স্কিনে প্রদর্শিত হবে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এটিএম মেশিনে কার্ড ইন্টার করার পর সেটা গ্রাহকের পিন নাম্বার জানতে চায়। পিন সঠিক হলে পরবর্তী অপশন সমূহ দেখায়, যেমনঃ ব্যালেন্স চেক করা, টাকা উঠানো, মিনি স্টেটমেন্ট। 

এটিএম বুথ থেকে কত টাকা তোলা যায়

বিভিন্ন ব্যাংকের বিভিন্ন কার্ডের লিমিট অনুযায়ী নির্ভর করে আপনি কত টাকা তুলতে পারবেন। সাধারণত এই লিমিট মাসিক বা দিন ভিত্তিতে হতে পারে। আপনার কার্ডের লিমিট কত জানতে আপনি আপনার ব্যাংকের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন, কিংবা ব্যাংকের হেল্পলাইনে ফোন করে জেনে নিতে পারেন। 

এটিএম কার্ডের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে

এটিএম কার্ডের পাসওয়ার্ড হচ্ছে এটিএমের গোপন পিন। আপনি যদি এই পিন ভুলে গিয়ে থাকেন, এক্ষেত্রে আপনাকে ব্যাংকের ব্রাঞ্চে গিয়ে পিন রিসেট(Reset) করে নিয়ে আসতে হবে। কিংবা কলসেন্টারের মাধ্যমে রিসেট করতে হবে।  তবে এটিএম কার্ডের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে চিন্তার কিছু নেই। কারন যেকোনো ব্যাংকের পাসওয়ার্ড রিকোভার সিস্টেম রয়েছে। কিছু ব্যাংকে এই কল সেন্টারের সেবার মাধ্যমেই ভুলে যাওয়া পাসওয়ার্ড রিসেট করা যায়। আবার কিছু ব্যাংকের ক্ষেত্রে ব্রাঞ্চে গিয়ে রিসেট করতে হয়। কল সেন্টারের মাধ্যমে রিসেট করার ক্ষেত্রে ব্যাংকের হেল্পলাইনে নাম্বারে কল দিয়ে তাদের পাসওয়ার্ড রিসেটের জন্য রিকুয়েস্ট করলে, তারা আপনার কাছে আপনার পরিচয় নিশ্চিত হতে কিছু তথ্য জিজ্ঞেস করবে। ঠিকঠাক তথ্য দিতে পারলে তারা আপনার পাসওয়ার্ড/পিনটি রিসেট করে দেবে। 

আর ব্রাঞ্চে গিয়ে পাসওয়ার্ড রিসেট করার জন্য আপনাকে ব্যাংকের নির্দিষ্ট ফরম পুরন করতে হবে। ফরম পুরন করে জমা দিলে আপনার পাসওয়ার্ড রিসেট করে দিবে। তবে এক্ষেত্রে ১ কার্যদিবসের বেশি সময় লাগার কথা নয়।

Spread the love

Leave a Comment